রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
সংবাদ শিরোনাম
কুষ্টিয়ায় কিশোর গ্যাং লিডার সুরুজের ছুরিকাঘাত কুষ্টিয়ায় নির্বাচনত্তোর সহিংসতায় আ’লীগ নেতার পিস্তলে গুলিবিদ্ধ-২ নড়াইলের কলোড়া ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত জাতীয় মানবাধিকার অ্যাসোসিয়েশন বগুড়া জেলা কমিটির উদ্যোগে ইফতার মাহফিল কুষ্টিয়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের চিত্র পাল্টে গেছে নওয়াপাড়া পৌরসভার কর্মচারীসহ ৫জনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন পৌর মেয়র যশোরের অভয়নগরে সাংবাদিক মোঃ আবুল বাসার এর ওপর সন্ত্রাসী হামলা থানায় অভিযোগ অসহায় শারীরিক প্রতিবন্ধী কোহিনুরের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিতে ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গে সাক্ষাৎ নওয়াপাড়া প্রেসক্লাবের বার্ষিক বনভোজন ও মিলন মেলা অনুষ্ঠিত দৈনিক লিখনী সংবাদ পত্রিকার বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত
ঘোষণা:
পরিবর্তনের অঙ্গীকারে আপনাকে স্বাগতম। সময়ের বহুল প্রচারিত বস্তুনিষ্ঠ ও নির্ভরযোগ্য  ভিন্নধারার নিউজ পোর্টাল "পরিবর্তনের অঙ্গীকার"। অতি অল্প দিনে পাঠক নন্দিত হয়ে উঠেছে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের লক্ষে কাজ করছে এক ঝাঁক তরুণ, মেধাবী ও অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী। দেশ-বিদেশের সকল খবরাখবর কারেন্ট আপডেট জানাতে দেশের জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সংবাদ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে।  ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি ভি)পাঠাতে হবে। ই-মেইল: khalidsyful@gmail.com , মোবাইল : ০১৮১৫৭১৭০৩৪

কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় জাসদ নেতাসহ ৩জনের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া অফিস // / ১৮০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২৩, ২:১২ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার একটি হত্যা মামলায় জেলা জাসদের নেতাসহ ৩জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়া অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালতের এর বিচারক আবীর পারভেজ জনাকীর্ণ আদালতে সাজাপ্রাপ্ত আসামীদের উপস্থিতিতে এই রায় দেন। রায়ে কারাদন্ডসহ ২৫হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬মাসের সাজার আদেশ আদালতের।

যাবজ্জীবন সাজা প্রাপ্তরা হলেন- মিরপুর উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামের বাসিন্দা মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে কুষ্টিয়া জেলা জাসদের প্রচার সম্পাদক কারশেদ আলম(৪৮), বিলআমলা গ্রামের মৃত: বরকত উল্লাহর ছেলে আব্দর রশিদ(৫৮) এবং মৃত: এছের আলীর ছেলে শহিদুল ইসলাম(৫৯)।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালের ১৫ আগষ্ট রাত সাড়ে ৭টায় দৌলতপুর উপজেলার লক্ষিপুর গ্রামের আলেক চাদের ছেলে সাহাজুল ইসলাম (২২) কে পূর্ব শত্রæতার জেরে আসামীরা সংঘবদ্ধ হয়ে উপর্যুপরি লাঠিসোটা রড চাপাতি রামদা ইত্যাদি দেশীয় অস্ত্রদিয়া মাথায় আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। পরে আশঙ্কাজনক সাহাজুলকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে পরিবার। সেখানে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাহাজুলকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যায় পরিবার। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার ৭দিনপর সাহাজুলের মৃত্যু হয়। এঘটনায় নিহতের চাচাতো ভাই মৃত: আজগার আলীর ছেলে বাদি হয়ে ২০১২ সালের ২২ আগষ্ট ১১জনের নামোল্লেখ করে অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগে দৌলতপুর থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলাটি তদন্ত শেষে ২০১৩ সালের ২৫ মার্চ এজাহার নামীয় ১১জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে দৌলতপুর থানা পুলিশ চার্জশীট দেয় আদালতে।

কুষ্টিয়া জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি এ্যাড. অনুপ কুমার নন্দী জানান, দৌলতপুর থানার সাহাজুল হত্যা মামলায় জড়িত আসামাীদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগে স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে ৩জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমানিত হওয়ায় তাদের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ডসহ প্রত্যেকের পৃথক ভাবে ২৫হাজার টাকা করে অর্থ দন্ডাদেশ অনাদায়ে আরও ৬মাসের সাজা দন্ডাদেশ দিয়েছেন বিজ্ঞ আদালত। এমামলায় বাকী ৮জনের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমানিত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস দিয়েছে আদালত।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর