শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১২:১৭ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
সংবাদ শিরোনাম
কুষ্টিয়ায় কিশোর গ্যাং লিডার সুরুজের ছুরিকাঘাত কুষ্টিয়ায় নির্বাচনত্তোর সহিংসতায় আ’লীগ নেতার পিস্তলে গুলিবিদ্ধ-২ নড়াইলের কলোড়া ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত জাতীয় মানবাধিকার অ্যাসোসিয়েশন বগুড়া জেলা কমিটির উদ্যোগে ইফতার মাহফিল কুষ্টিয়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের চিত্র পাল্টে গেছে নওয়াপাড়া পৌরসভার কর্মচারীসহ ৫জনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করলেন পৌর মেয়র যশোরের অভয়নগরে সাংবাদিক মোঃ আবুল বাসার এর ওপর সন্ত্রাসী হামলা থানায় অভিযোগ অসহায় শারীরিক প্রতিবন্ধী কোহিনুরের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিতে ইউপি চেয়ারম্যানের সঙ্গে সাক্ষাৎ নওয়াপাড়া প্রেসক্লাবের বার্ষিক বনভোজন ও মিলন মেলা অনুষ্ঠিত দৈনিক লিখনী সংবাদ পত্রিকার বার্ষিক বনভোজন অনুষ্ঠিত
ঘোষণা:
পরিবর্তনের অঙ্গীকারে আপনাকে স্বাগতম। সময়ের বহুল প্রচারিত বস্তুনিষ্ঠ ও নির্ভরযোগ্য  ভিন্নধারার নিউজ পোর্টাল "পরিবর্তনের অঙ্গীকার"। অতি অল্প দিনে পাঠক নন্দিত হয়ে উঠেছে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের লক্ষে কাজ করছে এক ঝাঁক তরুণ, মেধাবী ও অভিজ্ঞ সংবাদকর্মী। দেশ-বিদেশের সকল খবরাখবর কারেন্ট আপডেট জানাতে দেশের জেলা, উপজেলা এবং বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে সংবাদ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে।  ছবিসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি ভি)পাঠাতে হবে। ই-মেইল: khalidsyful@gmail.com , মোবাইল : ০১৮১৫৭১৭০৩৪

মোংলায় করোনা পরীক্ষা করাতে গিয়ে ২ জনের মৃত্যু

মোংলা প্রতিনিধি / ১৪৭ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১, ১:১০ অপরাহ্ন

মোংলায় করোনা পরিস্থিতির মারাত্মক অবনতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা পরীক্ষা করাতে গিয়ে দুজন মারা গেছেন।মৃত দুজন হলেন- রামপাল উপজেলার পেড়িখালী ইউনিয়নের ফুলপুকুর পাড়ের রফিকুল ইসলামের স্ত্রী তহুরুননেছা খুকি (৪২) ও মোংলার মালগাজী গ্রামের নুর আলমের ছেলে ইব্রাহিম (১৬)।উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) দেবব্রত সাহা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।এছাড়া গত রাতে করোনা নিয়ে মারা গেছে নতুন কবরস্থান এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে আসলাম (৪২) ও মাছমারা এলাকার খালেক (৬০)।এর আগে বুধবারও জয়মনি এলাকা থেকে করোনা পরীক্ষা করাতে এসে হাসপাতালে মারা যান আম্বিয়া বেগম নামের এক নারী। মারা যাওয়া সকলেই করোনা আক্রান্ত ছিলেন।এদিকে গত ৩০ মে থেকে দুই দফায় দেওয়া করোনা বিধিনিষেধে পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়ায় বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে আগামী বুধবার মধ্যরাত পর্যন্ত চলমান কঠোর বিধিনিষেধ আরও কঠোরতর করেছে বাগেরহাট জেলা প্রশাসন।নতুন করে জারি করা বিধিনিষেধে নদী পারাপার, যান চলাচল, দোকানপাট, পশুর হাট বন্ধের নির্দেশনা রয়েছে।তবে ভোর থেকে তা মানতে দেখা যায়নি। নদী পারাপার ও যান চলাচল করছে, রয়েছে লোকসমাগমও। খোলা রয়েছে দোকানপাটও।নিত্য প্রয়োজনীয় মুদি, কাঁচা, মাছ ও মাংসের দোকান খোলাস্থানে নেওয়ার নির্দেশনা থাকলেও তা রয়েছে আগের জায়গাতেই। সেখানে স্বাস্থ্যবিধি, সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহারের বালাই নেই।পৌর শহরের প্রবেশমুখগুলোতে পুলিশ ও আনসার থাকলেও সেখান থেকে হরহামেশা বিভিন্ন ইউনিয়নের লোকজন ও যানবাহন চলাচল করছে।স্থায়ী বন্দর এলাকায়ও বাসসহ বিভিন্ন যান চলাচল ও লোকসমাগমও বেশি দেখা গেছে। নিষেধাজ্ঞা থাকার পরও ভারতগামী নৌযানের স্টাফরা শহরে নেমে ঘোরাফেরা করছেন।গাদাগাদি করে নদী পারাপার ও নৌযানের স্টাফদের অবাধ চলাচলের বিষয়ে ক্ষোভ জানিয়েছেন স্থানীয়রা।এমন পরিস্থিতির মধ্যেও স্বাভাবিক রয়েছে মোংলা বন্দরে পণ্য ওঠানামা ও পরিবহনের কাজ।জেলা প্রশাসক মো. আজিজুর রহমান বলেন, বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে স্থানীয় প্রশাসন সর্বাত্মক চেষ্টা চালালেও লোকজন ও দোকানিরা এক প্রকার লুকোচুরি খেলা করছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর